1. news.sondhan24@gmail.com : Masudur Rahman : Masudur Rahman
  2. reporternahidtkg@gmail.com : Nahid Reza : Nahid Reza
  3. jmmasud24@gmail.com : Ujir Parosh : Ujir Parosh
  4. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ০৩:০৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
সন্ধান২৪ এর পক্ষ থেকে সবাইকে স্বাগতম। করোনা ভাইরাস রোধে নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার করুন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। ধন্যবাদ

হারিয়ে যাচ্ছে মুকসুদপুরের ইমিটেশনের পন্য

  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৯ মার্চ, ২০২০, ৪.৪৫ এএম
  • ৮৮ জন সংবাদটি পড়েছেন।

নিজস্ব প্রতিবেদক: পাকিস্তান আমল থেকেই গোপালগঞ্জে ঐতিহ্যগতভাবে ইমিটেশন শিল্পের জন্য বিখ্যাত ছিল । ব্রোঞ্জ ও পিতলের গহনা তৈরি করে জীবিকা নির্বাহ করতো হাজার হাজার নারী-পুরুষ । আর এসব গহনা কেনাবেচাকে কেন্দ্র করে জেলার মুকসুদপুরের জলিরপাড়ে গড়ে উঠেছিল বিশাল ব্রঞ্জ মার্কেট । কিন্তু উন্নত মালামাল, ডিজাইন ও টেকসইয়ের অভাবে দিন দিন চাহিদা কমে যাচ্ছে এসব গহনার । ফলে বিদেশি উন্নত পন্যের ভীড়ে হারিয়ে যাচ্ছে গোপালগঞ্জের তৈরি ইমিটেশন শিল্পের এসব গহনা ।
তবে এ শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এখানকার কারিগর ও ব্যবসায়ীরা । ব্রঞ্জ মার্কেটের এক ব্যবসায়ী উরুদাস শীল জানান, আমরা ঢাকার জিনজিরা থেকে কেজি প্রতি ৮’শ টাকা দরে ব্রঞ্জ কিনে আনি । এরপর কারিগরদের মাধ্যমে ডাইসে ও হাতে গহনার ডিজাইন করে ৪-৬ ধরনের এসিডের পানিতে ২০ মিনিট ভিজিয়ে রাখতে হয় । পরে মেশিন দিয়ে পলিশ ও রং করে গহনা তৈরি করা হয় । এখানে হাতের আংটি , চুড়ি, কানেরদুল, নাকফুল, কবচ, মাদলী, নুপুর, হাতের বাজু, চেইন, ক্লিপ, ঝুমকা, চুলের কাটাসহ বিভিন্ন ধরনের গহনা তৈরি করা হয় । এসব গহনা আগে আমাদের দেশ ছাড়াও বিদেশের বিভিন্ন জায়গাতে রপ্তানি করা হত । এখন তেমন চাহিদা না থাকলেও বিভিন্ন জেলার খুদ্র ব্যবসায়ীরা এসব পন্য কিনে নিয়ে যায় । উন্নত ক্যামিক্যাল ও মেশিনের অভাবে ভারত এবং চিনের টেকসই ও মানসম্পন্ন গহনার সাথে পেরে উঠতে না পারলেও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি এ শিল্পকে টিকিয়ে রাখার জন্য ।
কারিগরদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আগে অনেক চাহিদা থাকায় হাজার হাজার কারিগররা এখানে গহনা তৈরি করত । কিন্তু বর্তমানে এসব গহনার চাহিদা কম থাকায় একদিকে যেমন কমে গেছে গহনা তৈরির ততপরতা, অন্যদিকে ন্যায্য মজুরি না পাওয়ায় কারিগরের সংখ্যাও অনেকটাই কমে গেছে ।
ব্রঞ্জ মার্কেট সমিতির সা. সম্পাদক সুকান্ত তালুকদার জানান, চীন ও ইন্ডিয়ার মানসম্পন্ন ডিজাইনের গহনা ও সুলভ মূল্যের কারনে আমাদের এখানের তৈরি গহনার চাহিদা কমে গেছে । তাই যুগের সাথে তাল মিলিয়ে ব্যবসায় টিকিয়ে রাখতে এখানের তৈরি গহনার পাশাপাশি বিদেশি পন্য এনে বিক্রি করছে অনেকেই ।
ব্রঞ্জ মার্কেট সমিতির সভাপতি মন্টু রায় বলেন, যদি উন্নত মানের বিভিন্ন প্রয়োজনীয় মেশিন বাংলাদেশে আসে তাহলে আমরা তা কিনে কারিগর দিয়ে চাহিদা সম্পন্ন গহনা তৈরি করে বাজারজাত করতে পারবো । সরকার আমাদের এ ব্যাপারে সহযোগিতা করলে আমরা অবশ্যই এ শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে পারবো ।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020
Design & Development by : JM IT SOLUTION
error: সন্ধান২৪ এর কোন তথ্য কপি করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ !!