1. news.sondhan24@gmail.com : Masudur Rahman : Masudur Rahman
  2. reporternahidtkg@gmail.com : Nahid Reza : Nahid Reza
  3. jmmasud24@gmail.com : Ujir Parosh : Ujir Parosh
  4. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ১০:১১ অপরাহ্ন
নোটিশ :
সন্ধান২৪ এর পক্ষ থেকে সবাইকে স্বাগতম। করোনা ভাইরাস রোধে নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার করুন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। ধন্যবাদ

কোটালীপাড়া চাষীর হাসি সেলের মধ্যে ধান কাটা শুরু

  • প্রকাশিত : সোমবার, ৪ মে, ২০২০, ১.৪৮ পিএম
  • ৩৩৮ জন সংবাদটি পড়েছেন।

সুমন বালা, কোটালীপাড়া(গোপালগঞ্জ): গোপালগঞ্জ কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মাহফুজুর রহমান- এর বোরোধান কর্তনে শ্রমিক সংকট নিরসনের ব্যতিক্রমী উদ্দ্যোগ ” চাষীর হাসি সেল ” – এর মাধ্যমে কোটালীপাড়ার পৌরসভা ব্লকের বাগানউত্তরপাড়া সিআইজি মহিলা কৃষক সমবায় সমিতির কৃষানী বৃন্দ চাষীর হাসি সেল- এ নিবন্ধন করিয়ে বাগানউত্তরপাড়া গ্রামের নিরাঞ্জন হালদারের চাষীর সেলে চুক্তিবদ্ধ কৃষক ১.৩০ একর জমির ধান কর্তণ করেছে। কর্তনকালে উপস্থিত ছিলেন চাষীর সেলের রেজিষ্টেশন কমিটির আহবায়ক ও কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কৃষিবিদ মো: মিলন, উপ সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ অফিসার কৃত্তিবাস পান্ডে, উপ সহকারী কৃষি অফিসার বিকাশ সরকার এবং সুমন মৈত্র।

এ প্রসংগে চাষীর রেজিষ্ট্রেশন সেলের আহব্বায়ক ও কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কৃষিবিদ মো: মিলন বলেন – পশ্চিম পাড় বাগানউত্তরপাড়া গ্রামের বোরোচাষী নিরাঞ্জন হালদার তার ধান কাটার জন্য আবেদন করেছেন ও একই গ্রামের মহিলা সিআইজির সদস্যবৃন্দ শ্রমজীবী হিসাবে নিবন্ধন করিয়েছে। সেই হিসাবে তাদের মধ্যে একটি চুক্তিবদ্ধ হয়েছে, যার ধান কাটা দেখতে এসেছি। দেখে আমার খুব ভাল লাগল, দেখলাম নারীরা এখন আর পিছনে নেই,আমি তাদের সাধুবাদ জানাই।

উপ সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা কৃর্তিবাস পান্ডে বলেন – এরা এলাকার শ্রমজীবী মহিলা, এর আগে এরা একটি সিআইজি সমবায় সমতি গঠন করে ঐকবদ্ধ হয়ে বিভিন্ন কর্মকান্ড করে। ইতিমধ্যে চাষীর সেলে নিবন্ধন করিয়ে এলাকার ৪ জন চাষীর সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে, সে ধান পর্যায়ক্রমে কেটে দেওয়া হবে। আমি এই উদ্দ্যোগকে স্বাগত জানাই।

সংশ্লিষ্ট উপ সহকারী কৃষি অফিসার বিকাশ সরকার বলেন- চাষীর সেলে আবেদন ও চুক্তিবদ্ধ সকল কাজই নিয়ম মেনেই হয়েছে, যার মাধ্যম ছিলাম আমি, আমি অবাক হয়েছি কৃষানীদের আগ্রহ দেখে। পরে আরো বিস্মিত হলাম আজ তাদের ধান কাটা ও কর্মতৎপররতা দেখে।

চাষী নিরাঞ্জন হালদার বলেন – ধান কাটাতে চাষীর সেলে আমি আবেদন করি, মিলন স্যারের নেতৃত্বে আমি এই টিমের সাথে চুক্তিবদ্ধ হই। আমার ৩ বিঘা জমির ধান এই টিম কেটে দেবে। আমি এতে ভিশন ভিশন খুশি, ধন্যবাদ জানাই কৃষিবিদ মিলন, স্যার সহ ইউএনও স্যারকে। শ্রমিক টিমের প্রধান শিলা বাড়ৈ বলেন – আমরা ইতিমধ্যে ৪ জন কৃষকের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছি, যার জমির পরিমান ৫.৬০ একর। এ মৌসুমে আমারা কমপক্ষে ১৫ একরের ধান কাটতে চাই।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020
Design & Development by : JM IT SOLUTION
error: সন্ধান২৪ এর কোন তথ্য কপি করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ !!