1. news.sondhan24@gmail.com : Masudur Rahman : Masudur Rahman
  2. reporternahidtkg@gmail.com : Nahid Reza : Nahid Reza
  3. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud : jmmasud Sheikh
গোপালগঞ্জে কোরবানির হাটে বেচাকেনা কমায় দুঃচিন্তায় খামারীরা - Sondhan24
শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৮:৩৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
সন্ধান২৪ এর পক্ষ থেকে সবাইকে স্বাগতম। করোনা ভাইরাস রোধে নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার করুন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। ধন্যবাদ

গোপালগঞ্জে কোরবানির হাটে বেচাকেনা কমায় দুঃচিন্তায় খামারীরা

  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৬ জুলাই, ২০২০, ১.০০ পিএম
  • ২২৬ জন সংবাদটি পড়েছেন।
Although there are enough cows at the Korbani market, there are less buyers

নিজস্ব প্রতিবেদক : মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে সারা দেশের মতো গোপালগঞ্জে বসেছে কোরবানির পশুর হাট । তবে, ক্রেতা কম আসায় হাটে পর্যাপ্ত গরু থাকলেও নেই তেমন কেনা-বেচা । করোনার কারণে গরুর দাম অন্য বছরের তুলনায় কম। ভয়াবহ এ ভাইরাসের জন্য সাধারণ মানুষের আয়ের উৎস কমে যাওয়ায় ক্রেতাও অন্য বছরের তুলনায় কমেছে । এতে বেচাকেনা কমে গেছে কোরবানীর পশুর হাটে । ফলে দুঃচিন্তায় রয়েছে খামারী ও বেপারীরা ।

জানা যায়, আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে এবছর গোপালগঞ্জে ১৩টি পশুর হাট বসছে । পশুর হাটের পাশাপাশি অনলাইনেও পশু বেচাকেনা শুরু হয়েছে । বিষয়টি নতুন হলেও করোনাকালীন সময়ে অনলাইনের পশুর হাটে ঝুকছে অনেকে ।

গোপালগঞ্জের পাঁচটি উপজেলায় পশু বিক্রির জন্য পাঁচটি অনলাইন পশুর হাট খোলা হয়েছে । যেকেউ এই অনলাইনে গিয়ে পশু  কেনাকাটা করতে পারছেন । গোপালগঞ্জ অনলাইন গরুর হাটে গিয়েও (www.gopalganjhat.com) যে কেউ পশু বিকিকিনি করতে পারেন।

Although there are enough cows at the Korbani market, there are less buyers

 

হাট ঘুরে দেখা যায়, হাটে পর্যাপ্ত গরু থাকলেও ক্রেতা কম থাকায় বেচাকেনা আশানুরুপ কম । আর যারা হাটে আসছে তাদের মধ্যে কেউ কেউ গরু কিনলেও অধিকাংশই হাট ঘুরে চলে যাচ্ছন। এবার মহামারী করোনা  ভাইরাসের কারণে মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়ায় অনেকেই চাইলেও কোরবানি দিতে পারছেন না । গতবছর যারা নিজেরা পশু কোরবানী করেছেন এবার তারা ভাগে কোরবানী করার চিন্তা-ভাবনা করছেন । স্বাভাবিক ভা্বইে গরুর কেনা বেচা অন্যবারের তুলনায় অনেক কম। আর এতে খামারী ও ছোট ছোট প্রান্তিক কৃষকেরা পড়েছেন দুঃচিন্তায়।

খামারীরা জানান, এবছর গরুর যে দাম দেখা যাচ্ছে, এভাবে চললে আমরা খুবই লোকসানের মুখে পড়ে যাবো। তবে করোনা ভাইরাসের এ মহামারির সময় স্বাস্থ্য বিধি মানার প্রবনতা খুব একটা দেখা যায়নি হাটে । নানা অযুহাতের দোহাই দিয়েছেন হাটে আসা লোকজন।

সদর উপজেলা প্রানি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ গোবিন্দ চন্দ্র সরকার জানান, গোপালগঞ্জের পশুর হাটগুলোতে  নিয়োমিত তদারকী করছি। নিয়োমিত গরুর হাটের পাশাপাশি অনলাইনেও আমাদের পশুর হাট রয়েছে। যে কেউ ইচ্ছা করলে অনলাইনের মাধ্যমেও কেনা বেচা করতে পারেন ।

কোরবানি পশুর হাটের শেষ দিকে ক্ষতি পুশিয়ে পশু বিক্রি করতে পারবেন এমন প্রত্যাশা খামারী ও বেপারীদের ।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020
Design & Development by : JM IT SOLUTION