1. news.sondhan24@gmail.com : Masudur Rahman : Masudur Rahman
  2. reporternahidtkg@gmail.com : Nahid Reza : Nahid Reza
  3. jmmasud24@gmail.com : Ujir Parosh : Ujir Parosh
  4. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ০৮:০৪ অপরাহ্ন
নোটিশ :
সন্ধান২৪ এর পক্ষ থেকে সবাইকে স্বাগতম। করোনা ভাইরাস রোধে নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার করুন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। ধন্যবাদ

বঙ্গবন্ধুর অমূল্য স্মৃতি বহন করছে টুঙ্গিপাড়ার হিজল তলা

  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৯ মার্চ, ২০২০, ৪.২৮ এএম
  • ৪৮ জন সংবাদটি পড়েছেন।

নিজস্ব প্রতিবেদক: হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান । যার জন্ম না হলে আমরা পেতাম না স্বাধীন সোনার বাংলাদেশ। ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট তাকে হত্যায় এদেশে নিমে আসে শোকের জোয়ার। এ শোক বাঙ্গালী জাতির মনে চিরদিনের।

স্বাধীন বাংলাদেশ জুড়ে ছড়িয়ে আছে বঙ্গবন্ধুর নানা স্মৃতি, যা দেখে জাতির পিতার জীবনযাত্রা অনুভব করেন বিভিন্ন বয়সের দর্শনার্থীরা । এমনি এক অমূল্য স্মৃতি বহন করছে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার হিজলতলা।

টুঙ্গিপাড়া পৌরসভা এলাকায় বঙ্গবন্ধুর বাড়ির একেবারেই পাশ ঘেঁষে প্রবাহিত হয়েছে ছোট একটি খাল । আর এই খালের পাশেই থাকা হিজল তলায় বঙ্গবন্ধুর রয়েছে নানা স্মৃতিকথা। এখানের বাঁধানো ঘাটে তিনি এবং তার কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বাল্যকালে গোসল করতেন, খালে সাঁতার কাটতেন, হিজল তলায় অবসর সময় কাটাতেন।বিভিন্ন কাজের জন্য এখান থেকেই বঙ্গবন্ধু নৌকায় বের হতেন । হিজল গাছটি আজও বঙ্গবন্ধু স্মৃতিকথার সাক্ষী হয়ে আছে।

বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি ধরে রাখতে বঙ্গবন্ধুর বাড়ির পার্শ্ববর্তী খালের পাড় ও হিজল গাছের চারপাশ বাঁধাই করা হয়েছে। প্রতিদিনই জাতির জনকের স্মৃতিবিজরিত হিজল তলাসহ খালটি পরিদর্শনে আসেন শত শত বঙ্গবন্ধুপ্রেমীরা। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর‌্যন্ত নানা বয়সের দর্শনার্থীরা দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে এখানে এসে অনুভব করেন বঙ্গবন্ধুর জীবনযাত্রা।

দর্শনার্থীরা জানান, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধুকে দেখিনি, কিন্তু টুঙ্গিপাড়ায় তার অনেক স্মৃতি রয়েছে। তাই এখানে এসে বঙ্গবন্ধুর আদি পৈতৃক বাড়ি, ছেলেবেলার খেলার মাঠ, বঙ্গবন্ধুর প্রিয় বালিশা আমগাছ, হিজলতলাসহ বিভিন্ন স্মৃতি ঘুরে ঘুরে দেখছি। যতই দেখছি ততই অন্যরকম একটা অনুভূতি উপলব্ধি করছি ।

হিজল তলা সম্পর্কে টুঙ্গিপাড়ার বাসিন্দা শেখ লুৎফর রহমান(৭০)জানান, বঙ্গবন্ধু বাড়িতে আসলে এই হিজল তলায় বসে এলাকার মানুষের সাথে কথা বলতেন। এখানে এই খালের পানিতে গোসল করতেন।নানা স্মৃতি জড়িয়ে আছে এই হিজল গাছের সাথে।

একই এলাকার বাসিন্দা আবু তাহের জানান, তিনি মুরব্বীদের কাছে শুনেছেন বঙ্গবন্ধু এই হিজলতলা ঘাটে খালের পানিতে গোসল করতেন।হিজলতলায় বসে নানা গল্প করতেন এলাকার লোকজনের সাথে।

টুঙ্গিপাড়া পৌরসভা মেয়র শেখ আহমেদ হোসেন মীর্জা বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিকে ধরে রাখার জন্য আমি হিজল তলাসহ বঙ্গবন্ধুর পদচিহ্ন যেখানে যেখানে পড়েছে সেটাকে সংরক্ষনের ব্যবস্থা করেছি।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020
Design & Development by : JM IT SOLUTION
error: সন্ধান২৪ এর কোন তথ্য কপি করা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ !!