1. jmmasud24@gmail.com : Aa Gg : Aa Gg
  2. news.sondhan24@gmail.com : Masudur Rahman : Masudur Rahman
  3. reporternahidtkg@gmail.com : Nahid Reza : Nahid Reza
  4. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud : jmmasud Sheikh
পদ্মা সেতু চালুর দিন থেকেই গাড়ির সাথে চলবে ট্রেন - Sondhan24
সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৫৩ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
সন্ধান২৪ এর পক্ষ থেকে সবাইকে স্বাগতম। করোনা ভাইরাস রোধে নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার করুন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। ধন্যবাদ

পদ্মা সেতু চালুর দিন থেকেই গাড়ির সাথে চলবে ট্রেন

  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১.২৮ পিএম
  • ৪২৩ জন সংবাদটি পড়েছেন।

সন্ধান২৪ ডেস্ক: দেশের দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষের স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর থেকেই গাড়ির সঙ্গে রেল যোগাযোগও চালু হবে । ৬ দশমিক ১৫ কিরোমিটারের এ সেতুটির নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার পর ২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসে যানবাহন চলাচলের জন্য চালু করা হতে পারে ।  বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) পদ্মা সেতুর রেল প্রকল্প পরিদর্শন কালে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন  সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন জানিয়েছেন, ঢাকা থেকে মাওয়া পর্যন্ত রেলের কাজ ৪৬ শতাংশ আর জাজিরা থেকে ফরিদপুরের ভাঙ্গা পর্যন্ত ৫৫ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে । পদ্মা সেতুর ওপর সড়ক পথের নির্মাণ কাজের সাথে তাল মিলিয়ে দ্রুত গতিতে রেলপথের নির্মাণ কাজ এগিয়ে যাচ্ছে । এতদিন ধরে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষের পদ্মা পাড়ি দেওয়া এবং সড়ক পথে যাতায়াতে পড়তে হয়েছে বিভিন্ন  ভোগান্তিতে  । পদ্মা নদীতে তীব্র স্রোত, নাব্যতা সংকট , কুয়াশাসহ বিভিন্ন সমস্যার কারণে অনেক সময়  ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এজন্য যাত্রীদের যাতায়াতে বিভিন্ন সমস্যায় পড়তে হয়েছে । এসব দুর্ভোগ নিরসনে পদ্মা নদীর উপর সেতু নির্মিত হচ্ছে। পদ্মা সেতু চালুর পর এসব অঞ্চলের অর্থনৈতিক অবস্থার ব্যাপক উন্নতি হবে ।

সেতু বিভাগের প্রকৌশলীরা জানিয়েছেন , পদ্মা সেতুতে বসানো হয়েছে ৩১টি স্প্যান । এর জন্য  পদ্মা সেতুর অনেকটাই এখন দৃশ্যমান । সর্বশেষ ১০ জুন সেতুতে স্প্যান বসানোর পর পদ্মা নদীতে পানি বেড়ে যাওয়ার কারণে স্প্যান বসানোর কাজ থেমে যায় ।  এ মাসে দুটি স্প্যান বসানোর পরিকল্পনা ছিল । কিন্তু পদ্মায় পানি  বাড়তে থাকায় এ মাসে স্প্যান বসানোর সম্ভাব হয়নি । মাওয়া কুমারভোগ কন্সট্রাকশন ইয়ার্ডে  প্রস্তুত রয়েছে ৭টি স্প্যান ।  সবগুলো স্প্যান বসানোর জন্য  সেতু বিভাগের পরিকল্পনা রয়েছে আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে ।

পদ্মা সেতুতে সড়কপথ ও রেলপথ নির্মাণে প্রকৌশলী ও শ্রমিকরা সর্বদাই  ব্যস্ত রয়েছেন। একারণে দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে স্বপ্নের পদ্মাসেতুর নির্মান কাজ। আগামী  ২০২২ সালে পদ্মা সেতু চালু হলে দক্ষিন-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ সহজেই যাতায়াত করতে পারবে। নির্দিষ্ট সড়ক ধরে কোন প্রকার যানযট ছাড়াই আরামদায়কভাবে পৌছাতে পারবে গন্তব্যে । এছাড়াও পদ্মা সেতু চালুর পর বদলে যাবে এসব জেলার অর্থনৈকি অবস্থা। একই সাথে সৃষ্টি হবে ব্যাপক কর্মসংস্থানের। একারণে একদিকে যেমন দেশের অর্থনীতির আরো উন্নয়ন ঘটবে, অন্যদিকে দেশের বিশাল আকারের বেকারত্ব সমস্যাও অনেকটা দুর হবে ।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020
Design & Development by : JM IT SOLUTION